ads

আজকের ব্লগের এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের জানাবো রাউটার কি (What is router in bangla) কত প্রকার এবং রাইটার এর ব্যবহার ও সুবিধা গুলোর ব্যাপারে।

what is router in networking,  how it works router, what is router in networking, what is router admin password, what is router in computer network, what is router mode, what is router in networking and how it works, what is router security, what is router firmware, what is router and modem, What is router explain, What is router with example, What is a WiFi router used for, What is router and its types, what is router and switch, what is router in networking and how it works, router vs switch, what is router with diagram, router vs modem, router price, 3 main functions of a router, router pronunciation, নেটওয়ার্কিং এ রাউটার কি, রাউটার কিভাবে কাজ করে, নেটওয়ার্কিং এ রাউটার কি, রাউটার অ্যাডমিন পাসওয়ার্ড কি, কম্পিউটার নেটওয়ার্কে রাউটার কি, রাউটার মোড কি, নেটওয়ার্কিং এ রাউটার কি এবং এটি কিভাবে কাজ করে, রাউটার নিরাপত্তা কি, রাউটার ফার্মওয়্যার কি, রাউটার এবং মডেম কি, রাউটার কি ব্যাখ্যা, উদাহরণ সহ রাউটার কি, ওয়াইফাই রাউটার কিসের জন্য ব্যবহার করা হয়, রাউটার কি এবং এর প্রকারভেদ, রাউটার এবং সুইচ কি, নেটওয়ার্কিং এ রাউটার কি এবং এটি কিভাবে কাজ করে, রাউটার বনাম সুইচ, ডায়াগ্রাম সহ রাউটার কি, রাউটার বনাম মডেম, রাউটারের দাম, রাউটারের ৩টি প্রধান কাজ, রাউটার, রাউটার কি, রাউটার কত প্রকার ও কি কি, রাউটার (Router) এর ব্যবহার, রাউটার এর সুবিধা, রাউটারের দাম কত?,  রাউটার ব্যবহারের সুবিধা,  রাউটার এর সুবিধা গুলো বাংলা, ওয়্যারলেস রাউটার, পকেট রাউটার, পোর্টেবল 4G রাউটার, পকেট রাউটার bd মূল্য, সেরা পকেট রাউটার, বিডিতে পকেট রাউটারের সেরা দাম, বিডিতে 5জি পকেট রাউটারের দাম, Wireless routers , pocket router, Portable 4G Router, pocket router bd price, best pocket router, best pocket router price in bd, 5g pocket router price in bd, আজকের আইটি,


এছাড়াও আজ আমি আরো জানাবো রাউটার কাকে বলে ? রাউটার কত প্রকার ? রাউটার কিভাবে কাজ করে এবং এর ব্যবহার ও সুবিধা। তাছাড়া, আরো জানাবো পকেট রাউটার কি? কিভাবে কাজ করে পকেট রাউটার এবং  পকেট রাউটারের সুবিধা



 

আপনি যদি কোন সময় একটি  রাউটার কিনতে চান, তাহালে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, রাউটার ক্রয় করার আগে কি কি দেখতে হবে সে'ই বিষয়ে সহজে বুঝতে পারবেন।


বর্তমানে প্রতি ১০ জন লোকের মধ্যে ৮ জন ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। আর ইন্টারনেটের মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন ধরনের কাজ যেমন বিল পেমেন্ট, মোবাইল রিচার্জ, অনলাইন শপিং, ফ্রিল্যান্সিং, ওয়েব ব্রাউজিং, ই-মেইল সহ আরো বিভিন্ন ধরনের কাজ করি।


এছাড়াও প্রতিটি দপ্তরে ইন্টারনেটের মাধ্যমে নানান ধরনের অফিসিয়ালি কাজ গুলো হয়ে থাকে। Internet এর মাধ্যমে কাজ গুলো আমরা অনেক সহজেই করে নিতে পারছি। 


তবে, এখনো এমন বহু লোক আছে যারা ইন্টারনেট নতুন ইউজার। তাই তাদের জন্য আমি ইন্টারনেটের সাথে জড়িত নতুন একটি বিষয় জানাবো সেটার নাম “রাউটার”।



 

রাউটার এবং ইন্টারনেট এর মাঝে সম্পর্ক বেশ গুরুত্বপূর্ণ। তাহালে, আসুন নিচে থেকে জেনে আসি রাউটার কি বা রাউটার কাকে বলে ?


রাউটার কি? (What is Router in Bangal)

রাউটার কি বা “রাউটার কাকে বলে” এই প্রশ্নের উত্তর, রাউটার হল - একটি নেটওয়ার্কিং ডিভাইস যা বিভিন্ন নেটওয়ার্কের মধ্যে দিয়ে ডাটা তার গন্তব্যে কোন পথে যাবে সেটা নির্ধারণ করেন।


রাউটার ইন্টারনেটে ট্রাফিক ডিরেক্টিং এর কাজ সম্পর্ন করে। একাধিক নেটওয়ার্কের সমন্বয় গঠিত অন্ত নেটওয়ার্কের মধ্যে দিয়ে একটি ডাটা কে এক রাউটার থেকে অন্য রাউটারে পাঠানো হয়।



 

রাউটারের কাজ হল বিভিন্ন ধরনের কম্পিউটার বা ডিভাইজের নেটওয়ার্ক এর মধ্যে একটি যোগাযোগ মাধ্যম স্থাপন করে। নেটওয়ার্ক এর মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করার জন্য IP (internet protocol) ব্যবহার করা হয়।


সার্চ ইঞ্জিন কি? কত প্রকার এবং কিভাবে কাজ করে

আপনি  মোবাইলে ডাটা ব্যবহার করেন, সেই ডাটা ওয়াইফাই হটস্পট চালু করলে আপনার মোবাইল ফোনটি রাউটার হিসাবে কাজ করবে।


সহজে রাউটার কাকে বলে?

রাউটার এমন একটি ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস যার মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের আলদা আলদা কম্পিউটার নেটওয়ার্ক ডিভাইস গুলোকে সংযুক্ত করা হয়। একটি রাউটার এই কাজ wired বা wireless দুইটা কানেকশন এর মাধ্যমে করতে পারেন।


Wireless বা তারবিহীন এর মাধ্যমে রাউটার বিভিন্ন কম্পিউটার নেটওয়ার্ক গুলোকে কানেক্ট (Connect) করে এবং সে গুলোকে Wifi Router বলা হয়।



 

রাউটার হলো এমন একটি ডিভাইস যার মাধ্যমে একটি কম্পিউটার নেটওয়ার্ক কে আর একটি কম্পিউটার নেটওয়ার্ক এর সাথে কানেক্ট করে। তারপর এখান থেকে তথ্য আদান-প্রদান করা যায়।


ইন্টারনেট এর ক্ষেত্রে, রাউটার হল এমন একটি মাধ্যম যে'টি ব্যবহারের ফলে একটি কম্পিউটার থেকে ইন্টারনেট ডাটা অন্যান্য একটি কম্পিউটার নেটওয়ার্কে ইন্টারনেট ডাটা পাঠানো হয়।


রাউটার এর মাধ্যমে অন্যান্য কম্পিউটার নেটওয়ার্ক গুলো একটি বিশেষ ইন্টারনেট যুক্ত কম্পিউটার নেটওয়ার্ক থেকে ইন্টারনেট কানেকশন গ্রহন করতে পারে।


১৯৭৪ সালে রাউটার নামে এই নেটওয়ার্ক ডিভাইসটি ডেভেলপ করা হয়। রাউটারের মাধ্যমে ইন্টারনেট ডাটা কম্পিউটার গুলোতে প্রদান করার ক্ষেত্রে আগের রাউটারটি একটি মডেম এর যুক্ত করতে হত।



আশা করছি আপনারা, রাউটার কি বা রাউটার কাকে বলে এবং কাজ কি কি করে সহজে বুঝতে পেরেছেন । 


রাউটার কত প্রকার

রাউটারের অনেক প্রকারের রয়েছে। সে গুলোর মধ্যে সেরা ও জনপ্রিয় গুলো নিচে জানাবো।


Broadband routers (wired routers)

Wireless routers (wifi routers)

Core routers

Edge routers

Inter provider border routers

আসুন প্রত্যেকটির বিষয়ে নিচে থেকে জেনে আসি।


(১) Broadband Routers (Wired Routers)

এই রাউটার গুলো দু'ই বা তারও অধিক কম্পিউটার গুলোকে সংযুক্ত করার জন্য এবং ইন্টারনেটের সাথে কানেক্ট করার জন্য ব্যবহার করা হয়। 


এই ব্রডব্যান্ড রাউটার (Wired Routers) এর মাধ্যমে হাই স্পিড ইন্টারনেট ব্যবহার করা সম্ভব। এই রাউটার গুলো একটি Wired Connection এর মাধ্যমে মডেম থেকে ইন্টারনেট সেবা গ্রহণ পড়তে পারে।



 

এরপর বিভিন্ন স্থানে যেমন ঘরে ভিতর বা দপ্তর এর ভিতর থাকা অন্যান্য ডিভাইস গুলোকে সেই ইন্টারনেট কানেকশন এর সাথে সংযুক্ত হওয়ার পথ করে দেয়।


(২) Wireless Routers (Wifi Routers)

বর্তমান সময়ে Wireless Routers (ওয়াইফাই রাউটার) এর জনপ্রিয়তা এবং ব্যবহার প্রচুর বৃদ্ধি পেয়েছে। অফিস বা ব্যাক্তিগত কাজের জন্য প্রায় সকল জায়গায় এই Wifi Router গুলো ব্যবহার করা হয়।


এগুলোর মাধ্যমে একটি কম্পিউটার থেকে তার ছাড়া অন্য একটি কম্পিউটারের সাথে সংযুক্ত হয়ে ইন্টারনেট গ্রহন করতে পারে। এজন্য এই router কে তার ছাড়া বা wireless বলা হয়।


রাউটারের সিগনাল একটি নিদিষ্ট এরিয়ার ভিতরে থাকে। এই এরিয়ার মধ্যে যত গুলো কম্পিউটার, স্মার্টফোন, ল্যাপটপ ডিভাইস ইত্যাদি থাকবে সকলেই ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবে এই এরিয়ার ভিতরে। 


ইন্টারনেট ব্যবহার করা যাবে সম্পর্ন তারবিহীন। সুরক্ষার জন্য এই ওয়াইফাই রাউটার গুলোতে পাসওয়ার্ড (Password) ব্যবহার করা হয়। যাতে করে যে কেউ এই রাউটারের এক্সেস না নিতে পারে।


আপনার Wifi রাউটারের এরিয়াতে কেউ এসে আপনার অনুমতি বা পাসওয়ার্ড ছাড়া কম্পিউটার, ল্যাপটপ, স্মার্টফোন গুলোতে ইন্টারনেট এর সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে ব্যবহার করতে পারবে না। এর জন্য আপনার রাউটার এর সঠিক পাসওয়ার্ড দিতে হবে এরপর আপনি কোন একটি ডিভাইস চালাতে পারবেন.


(৩) Core Routers

Core Router এর মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের আলদা আলদা রাউটার গুলোকে একসাথে সংযুক্ত করার জন্য ব্যবহার করা হয়।


মনে করুন, আপনার অফিসে 15 টি রাউটার আলদা আলদা জায়গায় রয়েছে। এখন এই 15 টি রাউটারকে একসাথে পরস্পর যুক্ত করার কাজ করে এই Core Router.



 

Lane Network এর Backbone হিসাবে যে Router কাজ করে তাকে Core Router বলে। নির্দিষ্ট দুরত্বে আলদা আলদা রাউটার গুলোকে একসাথে সংযুক্ত করার জন্য এই Core Router ব্যবহার করা হয়।


(৪) Edge routers

এই রাউটার গুলোকে internet service provider  (ISP) এর জন্য পাশে রাখা হয়। এর প্রধান কাজ হল বাইরের protocol গুলোকে অন্যান্য ISP এর BGP সাথে সজ্জিত করা।


(৫) Inter Provider Border Routers

ISP হল - Internet Service Provider. আমরা যেমন GP, Robi, Airtel, Banglalink ইত্যাদি সার্ভিস প্রোভাইডার গুলোর মাধ্যমে আমাদের মোবাইল বা কম্পিউটারে ইন্টারনেট ব্যবহার করি।


এই ISP (Internet Service Provider) গুলোকে পরস্পর সংযুক্ত করার ক্ষেত্রে এই Inter Provider Border Routers ব্যবহার করা হয়ে থাকে।


রাউটার ব্যবহারের নিয়ম? | রাউটার কেন ব্যবহার করা হয়?

আজ প্রতিটি অফিস আদালতে বা দোকানে বা ঘরে রাউটার এর ব্যবহার হয়ে থাকে। এটির প্রধান একটি উদ্দেশ্য হল, একটি ISP (internet service provider) থেকে ইন্টারনেট কানেকশন গ্রহন করে বা যুক্ত করে থাকে বিভিন্ন ধরনের আলদা আলদা কম্পিউটার বা ডিভাইস গুলোর মধ্যে ডাটা শেয়ার করার উদ্দেশ্য। 


একটি মডেম এর মাধ্যমে রাউটার এ ইন্টারনেট গ্রহন করে। তারপর রাউটারে গ্রহন করা ইন্টারনেট ডাটা গুলো যাতে বিভিন্ন আলদা আলদা কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা মোবাইল ডিভাইস গুলোতে যাতে একসাথে ব্যবহার করা যেতে পারে।


এই কাজের জন্য রাউটার ব্যবহার করা হয়।


মনে করুন, আপনার অফিসে কম্পিউটার মডেম থেকে ইন্টারনেট কানেকশন করছেন এবং ব্যবহার করছেন।


এবার যদি এই মডেম থেকে আপনি অফিসের অন্যান্য কম্পিউটার ডিভাইস গুলোতে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে চান, আপনার এক্ষেত্রে প্রয়োজন হবে একটি রাউটার।


বিভিন্ন ধরনের ডিভাইস গুলো যাতে মডেমের মাধ্যমে এক সঙ্গে ইন্টারনেট কানেকশন করে ব্যবহার করতে পারে সে ক্ষেত্রে একটি রাউটার (router) কাজে আসে।


পকেট রাউটার কি? (What is Pocket Router in Bangla)

পকেট রাউটার গুলোকে Portable Wifi Router বলা হয়ে থাকে। এই রাউটার গুলো সাধারণ ওয়াইফাই রাউটার গুলোর তুলনায় ছোট আকারে হয়ে থাকে। 


তাই আপনি পকেটে করে যেখানে সেখানে নিয়ে যেতে পারবেন এবং ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। পকেট রাউটার সাধারণত Portable থাকে। 


 

সাধারণ রাউটা প্রথমে তারের মাধ্যমে সংযুক্ত করতে হয়। তারপর wifi ব্যবহার করে অন্যান্য কম্পিউটার ডিভাইস গুলোর সাথে যুক্ত করতে হয়।

পকেট রাউটার এর ক্ষেত্রে ইন্টারনেট কানেকশন করার ক্ষেত্রে আপনাকে যেকোনো একটি সিম ব্যবহার করতে হবে।


আপনি পকেট রাউটার এর মধ্যে যেকোনো অপারেটর এর সিম ব্যবহার করে ইন্টারনেট বা ডাটা ব্যবহার করতে পারবেন।


আপনি যেকোনো জায়গায় নিয়ে সেখানে রাউটার চালু করে দিবেন, সেখানে ওয়াইফাই কানেকশন এর মাধ্যমে'ই অনেক গুলো ডিভাইসে একত্রে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন।


মোবাইল, ল্যাপটপ এর মতো'ই পকেট রাউটার চার্জ দিয়ে ব্যবহার করা যায়। অনেক ক্ষেত্রে এই Pocket Router কে আবার Travel Router বলা হয়।


আশাকরি আপনারা, সহজে বুঝতে পেরেছেন পকেট রাউটার কি বা কাকে বলে ? এবার আসুন জেনে আসি পকেট রাউটার কিভাবে কাজ করে। 


পকেট রাউটার কিভাবে কাজ করে?

পকেট রাউটার ব্যবহারের জন্য আলদা কোনো  লাইনের প্রয়োজন নেই। এটা আপনার সিমের নেটওয়ার্ক দ্বারা চালিত।


আপনি যে অপারেটরের সিম এই পকেট রাউটার এর ভিতর প্রবেশ করাবেন সেই নেটওয়ার্ক এর অধিনে চালানো যাবে এই পকেট রাউটার। এর জন্য আপনাকে মাসিক কোনো চার্জ দিতে হবে না। এর জন্য আপনাকে প্রতিমাসে ইন্টারনেট প্যাকেজ কিনে নিতে হবে আপনার পছন্দের অপারেটরের কাছ থেকে।


একবার ক্রয় করার পর আজীবন আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। যে সকল জায়গায় ইন্টারনেট স্পিড কম সে জায়গায় এই পকেট রাউটার ব্যবহার করলে খুব ভালো ইন্টারনেট স্পিড পাবেন।


এই Pocket Router একাধিক ডিভাইস গুলোতে যেমন স্মার্টফোন, কম্পিউটার, ল্যাপটপে ব্যবহার করতে পারবেন।


পকেট রাউটার এর সুবিধা গুলো কি কি?

Pocket রাউটার এর বেশ কিছু সুবিধা রযেছে।


সুবিধাগুলো উল্লেখ করছি

  •  এই পকেট রাউটার গুলো পটেকে নিয়ে যেকোনো জায়গায় ঘুরতে পারবেন। 
  • যেকোনো সময় আপনি এই রাউটার থেকে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। 
  • অন্যান্য রাউটার এর তুলনায় পকেট রাউটার গুলো কম দামে পাওয়া যায়।
  • আয়তনে খুব ছোট বলে সহজে বহন করা যায়।
  • Pocket রাউটার এর মধ্যে যেকোনো সিম কোম্পানির ডাটা বা ইন্টারনেট কিনে ব্যবহার করা যায়। 
  • বিদ্যুৎ ছাড়া চার্জ দিয়ে পকেট রাউটার ব্যবহার করা যাবে।



পকেট রাউটার এর দাম? (Router Price in Bangladesh)

বর্তমানে আপনি বিভিন্ন ধরনের পকেট রাউটার বাজারে পেয়ে যাবেন। বাজারে যেগুলো বেশি চলমান এর মধ্যে বেশ কিছু পকেট রাউটার এর দাম নিচে দেওয়া হল। 


Huawei Airtel router E5573Cs609, 4G মূল্য – 4200 টাকা।

LTE MF925 4G Wireless Router মূল্য – 2940 টাকা।

Mini MF901 3G / 4G / LTE Wireless Portable Router মূল্য – 2800 টাকা।

Mini 3G / 4G / LTE Pocket Wireless Router মূল্য – 2450 টাকা

EE 4GEE WiFi Hotspot Pocket Router মূল্য – 3000 টাকা

Ieasun MF825S 4G LTE Mobile Router মূল্য – 3500 টাকা।


আমার শেষ কথা

আপনারা পোস্টটি পড়ে সহজে বুঝতে পারছেন রাউটার কি এবং “রাউটার কাকে বলে”। এছাড়া আরো বলেছি পকেট রাউটার কি এবং এর সাথে জড়িত সকল বিষয়ে বিস্তারিত আপনাদের সাথে আলোচনা করেছি।


আমি আজকের ব্লগ পোস্টের মাধ্যমে চেষ্টা করেছি সঠিক তথ্য গুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করার। আমার ব্লগ About Router in Bangla আর্টিকেলটি যদি আপনাদের কাছে ভালো লাগে তাহালে কমেন্টে জানাবেন এবং ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ।


 Tag: 

what is router in networking, 

how it works router,

what is router in networking,

what is router admin password,

what is router in computer network,

what is router mode,

what is router in networking and how it works,

what is router security,

what is router firmware,

what is router and modem,

What is router explain,

What is router with example,

What is a WiFi router used for,

What is router and its types,

what is router and switch,

what is router in networking and how it works,

router vs switch,

what is router with diagram,

router vs modem,

router price,

3 main functions of a router,

router pronunciation,

Wireless routers ,

pocket router,

Portable 4G Router,

pocket router bd price,

best pocket router,

best pocket router price in bd,

5g pocket router price in bd,

Post a Comment

Previous Post Next Post

ads p1

ads p2