ads

আজকের পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের অজানা জামাই ষষ্ঠীর সকল নিয়ম কানুন, ব্রতপূজার তারিখ ও সময়  সকল বিস্তারিত তুলে জানানোর চেষ্টা করব। নিম্নের জামাই ষষ্ঠীর সকল নিয়ম কানুন তুলে ধরা হলোঃ

jamai sasthi date in 2022, jamai sasthi 2022 date and time, jamai sasthi 2022 date west bengal, jamai sasthi 2022 date kolkata, jamai sasthi bengali date, jamai sasthi 2022 date in india, Jamai Sasthi , জামাই ষষ্ঠী 2022 তারিখ এবং সময়, জামাই ষষ্ঠী বাংলা তারিখ, 2022 সালে জামাই ষষ্ঠী তারিখ,


জামাই ষষ্ঠী' হল জামাইয়ের জন্য উদযাপিত একটি বাঙালি উৎসব। 'জামাই ষষ্ঠী' জৈষ্ঠ মাসের শুক্লপক্ষে (গ্রীষ্মকাল) একটি সামাজিক আচার হিসেবে পালিত হয়। এ মাসে বাংলার উর্বর মাটিতে আম, জাম, জামরুল, কাঁঠাল, লিচু ইত্যাদি জন্মে। এই শুভ উপলক্ষে অনেক পরিবার জামাই ষষ্ঠীর আয়োজন করেছে। তবে বাংলা ক্যালেন্ডার অনুযায়ী এবার জামাই ষষ্ঠী অনুষ্ঠিত হবে ২১ জৈষ্ঠ ১৪২৯, রবিবার।


জামাই ষষ্ঠী, জামাই ষষ্ঠী ফটো, জামাই ষষ্ঠী ইমেজ, জামাই ষষ্ঠী ওয়ালপেপার, জামাই ষষ্ঠী পিকচার্স, জামাই ষষ্ঠী গ্রাফিক্স।


জামাইষষ্ঠী ব্রত পূজার নির্ঘণ্ট ও ক্যালেন্ডার

২০২২ জামাই ষষ্ঠীর সময় ও তারিখ

২০২২ জামাইষষ্ঠীর উৎসব কবে হবে এবং কোন বার, কোন মাস, সকল বিস্তারিত নিচে দেওয়া হল -

জামাই ষষ্ঠী ২০২২

21 জ্যৈষ্ঠ 1429

(5ই জুন 2022 - রবিবার)


জামাই ষষ্ঠী কী এবং কেন উদযাপন করা হয় ?

বাঙালি মায়েরা জামাইবাবাজী কে খুশি করতে কত ধরনের উপায় না খুঁজেন। শত তপস্যার পর খুঁজে খুঁজে পেয়ে যান "জামাইষষ্ঠী" ব্রত পূজার বিধান। প্রতি বছর একটি নির্দিষ্ট দিনে জৈষ্ঠ্য মাসের মাঝামাঝি যখন আম কাঁঠালের পাকা গন্ধে চারিদিকে সুভাষিত তখনই এই ব্রতটী উদযাপন করতে হয়।


শ্বশুর বাড়িতে জামাই আদরের মহড়া পড়ে যায়। জামাই ষষ্ঠী ব্রত পূজার যা কিছু সবই কন্যার শিব ঠাকুর স্বামী কে ঘিরে আবর্তিত হয়ে থাকে। জামাইষষ্ঠী এমন একটি ব্রত যেখানে শাশুড়ি মাতা কন্যা-জামাতার দীর্ঘায়ু কামনা করে। জামাতা যশ কামনা করেন ও অর্থবিত্ত কামনা করেন, কন্যা - জামাতার কোল ভরে সুস্থ-সুন্দর সন্তান এমন আরও অনেক ধরনের মঙ্গল কামনা করে থাকেন।


কিন্তু শুকনো কথায় মঙ্গল কামনা করলে কি আর  জামাই বাবাজির পেট ভরবে ? মায়েরা এমন অবুঝ নন, উনারা জামাই বাবাজি কে যথাযথ সম্মান সহকারে নিমন্ত্রণ পাঠিয়ে থাকেন শ্বশুরবাড়িতে।



জামাই ভারতীয় সংস্কৃতিতে অত্যন্ত মূল্যবান এবং এই বাঙালি উৎসবকে প্রতিফলিত করে। এই উৎসবের আয়োজন বাঙালি সংস্কৃতির অবিচ্ছেদ্য অংশ। 'জামাই' বা 'জামাই' শব্দটি ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের ইঙ্গিত দেয়।


প্রতি বছরে একবার শাশুড়ি ‘জামাই’ বা জামাই ও তার মেয়েকে শ্বশুরবাড়িতে আমন্ত্রণ জানান। কন্যা ও জামাইয়ের আগমন উপলক্ষে সংক্ষিপ্ত সামাজিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সকালে স্নানের পর এক থালা ভাত, দূর্বো (ঘাস) ও পাঁচ প্রকার ফল দিয়ে আশীর্বাদ করুন। জামাইয়ের কপালে দইয়ের একটি চিহ্ন বা "ড্রপ" লাগানো হয় এবং তার কব্জির চারপাশে একটি হলুদ সুতো বাঁধা হয়। ষষ্ঠী পূজার পর পবিত্র জল ছিটিয়ে শাশুড়ি তার মেয়ে ও জামাইয়ের দীর্ঘায়ু কামনা করেন। পূজার পর শাশুড়ি জামাইকে অনেক উপহার দেন এবং তার মাথায় হাত রেখে তার দীর্ঘায়ু কামনা করেন। জামাইও শাশুড়িকে বিশেষ কিছু উপহার দিয়েছেন। এই অনুষ্ঠানগুলি আজও পালিত হয়।


লাঞ্চ সবসময় একটি দীর্ঘ ব্যাপার. সূক্ষ্ম রান্না করা সবজির তরকারি এবং বিভিন্ন মাছের তরকারি প্রধান খাবারের চারপাশে ব্যাপকভাবে সাজানো হয়। ভাত বা পোলাউ ভরা প্লেট। বাঙালীর থালি খাবার, কথিত আছে মানুষের হৃদয়ের পথও তার পেট দিয়ে যায়। খাবার এই উৎসবের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। লুচি, আলু তরকারি, বেগুন ভাজা, মুগ ডাল, পেঁয়াজ পাকোড়, বিভিন্ন মাছের স্বাদ, চিংড়ি মালাইকারি, রসগোল্লা, সন্দেশ, আম দই, মিষ্টি দই 'গরম ভাত থেকে প্যান-মসলা পর্যন্ত'।


বলা হয়, জামাই ষষ্ঠীর উত্থান ঘটেছিল বহু বছর আগে নারীদের সামাজিক-ধর্মীয় দায়িত্বের অংশ হিসেবে। সন্তানের মঙ্গল কামনায় পরিবারের মহিলারা সর্বদা ষষ্ঠী দেবীর পূজা করেন। কথিত আছে যে একদা একটি নির্দিষ্ট শহরে একটি পরিবার ছিল যার কনিষ্ঠ পুত্রবধূ ছিলেন একজন লোভী মহিলা। 



তিনি বেশিরভাগ সময় রান্না করা সমস্ত খাবার খেয়েছিলেন এবং বিড়ালকে দোষারোপ করেছিলেন। বিড়ালটি ছিল দেবী ষষ্ঠীর বাহন এবং বিড়ালটি তার ন্যায়বিচারের কাছে অভিযোগ করেছিল। ষষ্ঠী দেবী তার মেয়ে ও জামাইকে নিয়ে নারীকে শিক্ষা দিতেন। কথিত আছে মেয়ের জামাই সাত ছেলে ও এক মেয়ের জন্ম দিলেও তার সব সন্তান চুরি হয়ে যায়।


মহিলাকে বাড়ি থেকে জঙ্গলে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল। তিনি কাঁদলেন এবং দেবী ষষ্ঠী তাকে করুণা করলেন এবং একজন বৃদ্ধের ছদ্মবেশে তার সামনে উপস্থিত হলেন। মহিলা তার দুঃখ প্রকাশ করলেন, দেবী ষষ্ঠী তাকে তার অতীতের অন্যায়ের কথা মনে করিয়ে দিলেন। তিনি অনুতপ্ত হলেন এবং রহমতের প্রার্থনা করলেন।


 তারপর তাকে কিছু সামাজিক আচার পালন করতে বলা হয়েছিল যা তার সন্তানদের ফিরিয়ে এনেছিল। এই গল্পটি অনেক মহিলাকে তাদের সন্তানদের জন্য দেবী ষষ্ঠীর প্রার্থনা ও উপাসনা করতে অনুপ্রাণিত করেছিল। ধীরে ধীরে আবার 'জামাই ষষ্ঠী'তে ফিরে গেল।


এতে অনুপ্রাণিত হয়ে হাজারো মা ও শাশুড়ি আজ এই উৎসব পালন করেন। বাড়িতে শাশুড়ি তাকে ‘জামাই’ বা জামাই ও পুত্রবধূ বলে ডাকে। শাশুড়ি অনেক আচার-অনুষ্ঠান করতেন।


সর্বশেষে, আজকের ব্লগ ডটকমের মাধ্যমে এই জামাইষষ্ঠীর উপনয়ন নিয়ম নীতি কাহিনী পরে আপনারা সহজে বুঝতে পারছেন আশা করি। যদি কোন কিছু জানার থাকে তাহলে আমাদেরকে কমেন্ট বক্সে জানান। এছাড়াও এরকম আরো অনেক ধরণের পোস্ট পেতে আমাদের সাথে থাকুন ধন্যবাদ


jamai sasthi date in 2022

jamai sasthi 2022 date and time

jamai sasthi 2022 date west bengal

jamai sasthi 2022 date kolkata

jamai sasthi bengali date

jamai sasthi 2022 date in india

Jamai Sasthi

Festivals Date Time

বাংলা ক্যালেন্ডার ১৪২৯

Jamai Sasthi 2022 Date (জামাই ষষ্ঠী) in India, Bangladesh

2022 Jamai Sasthi Date and Time | 2022 জামাই ষষ্ঠী তারিখ

Post a Comment

Previous Post Next Post

ads p1

ads p2